elektronik sigara

জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে প্রকাশিত একাডেমিক ক্যালেন্ডার পেতে ক্লিক করুন

হযরতওয়ালা দা.বা. কর্তৃক সংকলিত চিরস্থায়ী ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে চাইলে এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” এ ভিজিট করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

কসরের নামায

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

আমি ঢাকা হতে চাঁদপুরে বেড়াতে গিয়ে নামায কসর পড়ে থাকি। চাঁদপুর হতে আমাদের গ্রামের বাড়ী ২৫/২৬ মাইল। সেখানে গিয়ে আবার পুরো নামায পড়ি। ফেরার পথে আমাদের গ্রামের বাড়ী হতে নানার বাড়ীর দূরত্ব ৪/৫ মাইল। সেখানে গিয়ে আবার কসর পড়ি। আমার জন্য উল্লেখিত পন্থায় নামায আদায় করা ঠিক হচ্ছে কি-না?


জবাবঃ


যখন কোন ব্যক্তি ৪৮ মাইল দূরত্বের সফরের নিয়্যাত করে নিজ এলাকা থেকে বের হয়ে যায়, তখন থেকেই শরীআতের দৃষ্টিতে সে মুসাফির হিসেবে গণ্য হয়।গন্তব্যস্থলে পৌঁছার পূর্বে বা সেখানে পৌঁছে পনের দিন বা তার অধিক কাল থাকার নিয়ত করার পূর্ব পর্যন্ত এবং পুনরায় নিজের বাসস্থানে পৌঁছার পূর্ব পর্যন্ত তাকে নামায কসর পড়তে হবে। এই কসর আমাদের মাযহাব মতে ওয়াজিব।


সুতরাং আপনি যদি ঢাকায় সপরিবারে স্থায়ীভাবে বসবাস করার নিয়ত করে থাকেন এবং মাঝে মাঝে গ্রামের বাড়ীতে যান এবং সেটাকেও নিজ বাড়ী হিসেবে বহাল রাখেন, অর্থা ভবিষ্যতে সেখানে বসবাসের ইচ্ছা থাকে, তাহলে উভয়টিই আপনার জন্য ওয়াতনে আসলী। আর যদি ঢাকাতে একা অবস্থান করে ব্যবসা বাণিজ্য বা চাকুরী ইত্যাদি করেন এবং প্রথম একবার একটানা পনের দিন ঢাকাতে অবস্থান করে থাকেন, সেক্ষেত্রে ঢাকা আপনার জন্য ওয়াতনে ইকামত গণ্য হবে। সুতরাং ঢাকা থেকে সরাসরি চাঁদপুরে গিয়ে নামায কসর পড়া যেমন ঠিক হয়েছে, তেমনি গ্রামের বাড়িতে গিয়েও পূর্ণ নামায পড়া যথার্থ হয়েছে। যদি বাড়ী হতে ঢাকায় ফেরার নিয়তে বের হয়ে পথে নানার বাড়ীর হয়ে আসেন, তাহলে সেখানে নামায কসর পড়বেন। (প্রমাণ: আদ দুররুল মুখতার, ২:১২৩ # আর বাহরুর রায়িক, ২:১৩৬ # মাসায়িলে সফর, ১০১ ও ১০৩)