elektronik sigara

আগামী ইজতেমা ২০শে জুমাদাল উখরা, ১৪৪৪ হিজরী ‍মুতাবেক ১৩ই জানুয়ারী, ২০২৩ ঈসায়ী তারিখ শুক্রবার থেকে ২২শে জুমাদাল উখরা, ১৪৪৪ হিজরী মুতাবেক ১৫ই জানুয়ারী, ২০২৩ ঈসায়ী তারিখ রবিবার পর্যন্ত চলবে। অর্থাৎ ১৩,১৪,১৫ জানুয়ারী, ২০২৩। ইজতেমার ময়দানের ম্যাপ ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

 

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৬শে জুমাদাল উখরা, ১৪৪৪ হিজরী, ২০ই জানুয়ারী, ২০২৩ ঈসা‘য়ী, শুক্রবার (সকাল ৭-৮টা থেকে শুরু হবে ইনশাআল্লাহ)

হযরতওয়ালা দা.বা. কর্তৃক সংকলিত চিরস্থায়ী ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে চাইলে এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” এ ভিজিট করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

ঋতুস্রাবের পূর্বে কাযা নামায

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

একটি মেয়ে ১৯৭৫ সালের ২৭ শে জুন জন্ম গ্রহণ করে। মেয়েটি ৮৭ সালের কোন এক মাস থেকে নামায পড়া শুরু করে। কিন্তু মেয়েটির ৮৯ সালের জানুয়ারী মাসে ঋতুস্রাব হয়। ৮৭ সালের আগে মেয়েটির বালেগা হবার কোন লক্ষণই দেখা যায়নি। তাছাড়া নামায সম্পর্কে কোন জ্ঞান বা আগ্রহ তখন তার হয়নি। এমতাবস্থায় মেয়েটি পূর্বের জীবনের অর্থাৎ ৮৭ সালের আগে কতদিনের নামায কাযা আদায় করবে? ‍বিস্তারিত জানালে চির কৃতজ্ঞ থাকব।


জবাবঃ


কোন মহিলার ৯ বত্সর বয়সের পরে যে কোন সময় ঋতুস্রাব শুরূ হলে সে মহিলা বালেগা (পূর্ণ বয়স্কা) হয়ে থাকে। তখন থেকে শরী‘আতের সকল হুকুম পালন করা তার জন্য কর্তব্য হয়ে যায়। আর পনের বৎসর বয়স হওয়ার পর ঋতুস্রাব না হলেও তাকে বালেগা ধরা হবে। উক্ত মেয়ের পূর্বেকার নামাযের কাযা আদায় করতে হবে না। কারণ, ১৫ বছরের পূর্বে ঋতুস্রাব না হওয়ায় সে বালেগা হয়নি। সুতরাং তার উপর নামায ফরয হয়নি। তাই উক্ত মেয়ের ৮৯ সালে ঋতুস্রাব শুরু হওয়ার পর থেকে যে সব নামায কাযা হয়েছে তা আদায় করে নিতে হবে। ৮৯ সালের পূর্বের নামায কাযা করার প্রয়োজন নেই। (প্রমাণঃ হিদায়া ৩ : ৩৪১)


وبلوغ الجارية بالحيض والاحتلام والحبل فان لم يوجد ذلك فحتى يتم لها سبع عشر سنة وهذا عند ابي حنيفة وقال اذا تم للغلام والجارية خمس عشرة سنة فقد بلغا وهو رواية عن ابي حنيفة.   (الهداية:3/341)