elektronik sigara

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ঈসায়ী।

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেরিয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

রবিউল আউয়ালের রোযা রাখা

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

(ক) রবিউল আউয়াল মাসে আমাদের বিশেষ কি করণীয়?

(খ) ১২ই রবিউল আউয়ালে রোযা রাখার বিধান শরী‘আতে আছে কি?

 


জবাবঃ


মাহে রবিউল আওয়াল নিঃসন্দেহে ফযীলতের মাস, এ মাসের ফযীলতের জন্য এটাই যথেষ্ট যে, এ মাসে দু’জাহানের সরদার, সায়্যিদুল মুরসালীন, রাহমাতুল্লীল আলামীন, খাতামুন নাবিয়্যীন মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া-সাল্লাম-এর এই পৃথিবীতে আগমন হয়েছে- যে সময় বা কাল যত বেশী ফযীলতপূর্ণ হয়, সে মাসের ইবাদত আল্লাহ তা‘আলার নিকট তত বেশী পছন্দনীয় হয়, আর ঐ সময় বা কালে শরী‘আত ও সুন্নাত বিরোধী কাজ ততবেশী অপছন্দীয়। এখন জানার বিষয় যে, ‘ইবাদত’ কাকে বলে? আল্লাহ ও তাঁর রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া-সাল্লাম যে কাজ বা আমল করা স্বীকৃতি দিয়েছেন বা যা করা পছন্দ করেন সেটাকে আল্লাহ পাকের নির্দেশিত ও রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া-সাল্লাম-এর অনুসৃত পন্থায় করার নামই ‘ইবাদত’। এর ব্যতিক্রম যে কাজ তা সবই বিদ‘আত ও বর্জনীয়।


(ক) রবিউল আউয়াল মাসে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া-সাল্লাম-এর জন্ম ও ওফাতকে কেন্দ্র করে তেমন কোন ব্যতিক্রমধর্মী আমল কুরআন, হাদীস বা মুজতাহিদীনে উম্মত থেকে বর্ণিত আছে বলে জানা যায় নি।


(খ) ১২ই রবিউল আউয়ালে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া-সাল্লাম এর জন্ম বা ওফাতকে কেন্দ্র কের রোযা রাখার কোন বিধান শরী‘আতে নেই।