elektronik sigara

জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে প্রকাশিত একাডেমিক ক্যালেন্ডার পেতে ক্লিক করুন

হযরতওয়ালা দা.বা. কর্তৃক সংকলিত চিরস্থায়ী ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে চাইলে এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” এ ভিজিট করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

নবীকে হাজির-নাজির ও ওলীদের কবরে যিন্দা মনে করার হুকুম

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

আমি একটা মিলে চাকুরী করি। মিল মসজিদের ইমাম সাহেব এবং বাসার আশপাশের মসজিদের ইমামগণ এই আকীদা পোষণ করেন যে, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হাযির ও নাযির। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নূরের তৈরী। যা সরাসরি আল্লাহ পাকের জাতি নূরের অংশ। খাজা মুঈনুদ্দীন চিশতী রহ. সহ সকল ওলীগণ স্বীয় কবরে যিন্দা। তাদেরকে যে মৃত বলবে, সে কাফের হবে। এ ধরনের আরো অনেক ভ্রান্ত আকীদা পোষণ করেন। উল্লেখিত আকীদা পোষণের কারণে আমি তাদের পিছে নামায পড়ি না। একাকী নামায পড়ে নেই। এখন জুমু’আর নামায নিয়ে সমস্যা। কারণ-শুক্রবারও ডিউটি থাকে। অনেক দূরে গিয়েও জুমু’আ আদায় করা সম্ভব হয় না। এমতাবস্থায় উক্ত ইমামের পিছনেই জুমু’আর নামায আদায় করবো, নাকি একাকী যোহরের নামায আদায় করবো?


জবাবঃ


আপনার বর্ণনা মতে, উল্লেখিত আকীদা পোষণকারী ব্যক্তিরা নিঃসন্দেহে গুমরাহ এবং বিদ’আতী। আর বিদ’আতী লোকের পিছনে নামায পড়া মাকরূহে তাহরীমী। [প্রমাণঃ ফাতাওয়া দারুল উলূম ৩:২৪০, ২৪৫, ২৮০, # দুররে মুখতার ১:৫৬৬ # ফাতাওয়া মাহমূদিয়া ২:৭৩]


তবে মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সরাসরি আলিমুল গাইব ও হাযির-নাযির মনে করা, তাকে নূরের তৈরী মনে করা এবং সে নূরকে আল্লাহ তাআলার জাতি নূরের অংশ মনে করা কুফরী আকীদার শামিল। এক্ষেত্রে এ ধরনের আকীদা পোষণকারী ব্যক্তিরা পিছনে নামায না পড়ে অন্য কোন মসজিদে গিয়ে নামায পড়তে হবে। অন্য মসজিদ অনেকদূরে হলেও সেখানে গিয়ে জুমু’আর নামায আদায় করতে হবে। যদি কোন দিন বিশেষ কোন কারণে দূরের মসজিদে গিয়ে জুমু‘আর নামায আদায় করা সম্ভব না হয়, তাহলে একা একা যোহরের নামায আদায় করে নিবে। [প্রমাণঃ কিফায়াতুল মুফতী ১:১৬৪, # সূরা আল-আনআম ৫৯]