elektronik sigara

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ঈসায়ী।

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেরিয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

টেলিভিশনে ইসলামী গান-গযল ও খবর শোনা

তারিখ : ০১ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

 

জিজ্ঞাসাঃ মাসিক মুজাহিদ বার্তা অক্টোবর ’৯৯ সংখ্যায় ২৭ নং প্রশ্নের উত্তরে লিখেছেন, বাদ্য ব্যতীত ইসলামী গান, গযল ও খবর রেডিওতে পরিবেশন ও শুনা যাবে । টেলিভিশনে মহিলা ব্যতীত পরিবেশিত খবর ও ইসলামী অনুষ্ঠান ও ‍শিক্ষামূলক ধর্মীয় অনুষ্ঠান দেখা যাবে । অথচ মাসিক রাহমানী পয়গাম অক্টোবর ’৯৯ সংখ্যায় লিখেছেন কোন অবস্থায়ই টেলিভিশনের কোন অনুষ্ঠান দেখা জায়িয হবে না । সঠিক ‍উত্তর জানতে ইচ্ছুক ।

 


মুজাহিদ বার্তায় যে টেলিভিশনের কথা বলেছে তা আজ কোথায় আছে? স্যাটেলাইট ও ইন্টারনেটের এ যুগে মুজাহিদ বার্তার মাসআলা কল্পনা বিলাস ছাড়া আর কি হতে পারে । তাছাড়া টিভি দেখা না জায়িয হওয়ার উল্লেখযোগ্য একটি কারণ হল ধারণকৃত প্রাণীর ছবি । কারণ, শরী‘আতের দৃষ্টিতে প্রাণীর ছবি ধারণ করে রাখা অংকনের নামান্তর । আর ধারণ করা যেমন না জায়িয, তেমনি ইচ্ছাকৃত ভাবে তা দেখাও না জায়িয । কারণ, এতে ছবি দেখার সাথে সাথে হারাম কাজের সহযোগিতা করা হয় । অথচ কিছু খেলাধুলা ছাড়া টিভির প্রোগ্রাম সাধারণত পূর্ব থেকে ধারণকৃতই হয়ে থাকে । সুতরাং সর্বাবস্থায় এটা রাখা ও দেখা হারাম ।


সর্বক্ষণ যার মধ্যে চরম বেহায়াপনা সহ হারাম প্রোগ্রাম চলতে থাকে তার মধ্যে সামান্য কিছু সময় ইসলামী প্রোগ্রাম করা দীন অবমাননা এবং দীন নিয়ে ঠাট্টা তামাশার শামিল । এর দৃষ্টান্ত এরূপ যে, নাচ-গানের ফাঁকে-ফাঁকে দীনের নসীহত করা, ওয়াজ করা বা নর্দমা দিয়ে মিষ্টান্ন ভেসে আসা । সুতরাং টিভিতে দীনী প্রোগ্রাম করা নিঃসন্দেহে দীন কে অপমান করা । যা স্বয়ং কুরআনেই নিষেধ করা হয়েছে এবং এটাকে ইয়াহুদীদের চরিত্র বলা হয়েছে । সুতরাং বর্তমানে টিভিতে দীনী প্রোগ্রাম জায়িয হওয়ার প্রশ্নই আসে না ।


অবশ্য রেডিওতে গান-বাজনা না শুনে খবর বা কোন বৈধ প্রোগ্রাম শোনা সম্ভব বিধায় শরী‘আতে তার অবকাশ আছে । তাও এ শর্তে যে তা ঘরের দ্বায়িত্বশীলগণ সম্পূর্ণ নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখবে । নিয়ন্ত্রণহীন ভাবে ঘরে রেখে দিলে এর দ্বারাও ঘরের পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে ।


[প্রমাণঃ তাকমিলায়ে ফাতহুল মুলহিম ৪ : ১৬৪ # ইমদাদুল ফাতাওয়া ৪ : ২৫৮ # জাওয়াহিরুল ফিক্বহ, ৩ : ৮৪ # ইমদাদুল মুফতীন ৯৯১ # আহসানুল ফাঃ ৮ : ১৭৩]