elektronik sigara

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেড়িয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

ছোট তিন আয়াতের পরিমান

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

সূরা ফাতিহার পর কমপক্ষে বড় এক আয়াত অথবা ছোট তিন আয়াত পাঠ করা ওয়াজিব। প্রশ্ন হচ্ছে, এই ছোট তিন আয়াতের পরিমাণ কতটুকু ? এবং তারাবীহ নামাযের কোন রাকা’আতে সূরা ফাতিহার পর {مُدْهَامَّتَانِ  فَبِأَيِّ آلَاءِ رَبِّكُمَا تُكَذِّبَانِ}  এতটুকু পড়ার দ্বারা নামায সহীহ হবে কিনা ?

 


জবাব:


ছোট তিন আয়াতের হদ বা পরিমাণ হল-


{ثم نظر ثم عبس وبسرثم أدبرواستكبر}-


অথবা এর সমমানের ত্রিশ হরফ বিশিষ্ট এক বা একাধিক আয়াত। সুতরাং কেউ যদি তারাবীহ নামাযে সূরা ফাতিহার পর প্রশ্নে বর্ণিত আয়াতদ্বয় পাঠ করে রুকূতে যায়, তাহলে নি:সন্দেহে তার নামায সহীহ হয়ে যাবে। কেননা, উক্ত আয়াতদ্বয়ে ত্রিশটি অক্ষর রয়েছে।


উল্লেখ্য যে, কোন ফরয নামাযে সূরা ফাতিহার পর কেবলমাত্র


{مُدْهَامَّتَانِ  فَبِأَيِّ آلَاءِ رَبِّكُمَا تُكَذِّبَانِ}


পরিমাণ পাঠ করে রুকূতে গেলে যদিও ওয়াজিব আদায় হয়ে যাবে কিন্তু মাসনূন কিরাআত পরিত্যাগ করার কারণে নামায মাকরূহে তানযীহী হবে। [প্রমাণ: ফাতাওয়া দারুল উলূম ২ : ২২০, # দুররে মুখতার ১ ধ ৪৫৬-৪৫৯]


ولها واجبات......وهى قراءة فاتحة الكتاب وضم أقصر سورة كالكوثر او ما قام مقامها وهوثلاث ايات قصار نحو {ثم نظرثم عبس وبسرثم أدبرواستكبر}- وكذا لو كانت الأية اوالأياتان تعدل ثلاثا قصارا- ذكره الحلبى فى الاوليين من فرض – [الدرالمختار- 1/456-459]