elektronik sigara

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ঈসায়ী।

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেরিয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

গুপ্তাঙ্গে তরল পদার্থ জমা থাকলে উযু ভাঙ্গবে কি-না ?

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

জনৈক ব্যক্তির প্রস্রাবের বাস্তায় অনেক সময় তরল জাতীয় একপ্রকার পদার্থ জমা থাকে । হাত দ্বারা চাপ দিলে তা বের হয় । এতে উযু ও নামাযের কোন ক্ষতি হবে কি ? তেমনিভাবে এমতাবস্থায় ইমামতি করা যাবে কি-না ?


জবাবঃ


যদি কারো পরিপূর্ণ বিশ্বাস থাকে এবং বাস্তবেও এই হয় যে, এ তরল পদার্থ প্রস্রাবের রাস্তার ভিতরে রয়েছে এবং চাপ না দিলে বাইরে বের হয় না, তাহলে এক্ষেত্রে করণীয় হল কুলুখ নিয়ে পর্দা সহকারে ৮/১০ কদম হাটাহাটি করবে বা কাশি দিবে । এতেই যা বের হয় পানি দিয়ে ধুয়ে নিবে । এরপরও যদি পেশাবের কোন অংশ ভিতরে জমা থাকে, আর তা না বের হয় তাহলে এর দ্বারা উযু ভাঙ্গবে না । এবং নামায ও ইমামতির কোন ক্ষতি হবে না । কোনক্রমেই উক্ত বিশেষ অঙ্গকে টানাটানি করা বাঞ্ছনীয় নয় । আর শরী‘আতে এর নির্দেশও দেয়া হয়নি । তাছাড়া এরূপ করার পরিণতিতে উক্ত অঙ্গ মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হয় এবং এর ফলে নানারকম যৌনরোগ দেখা দিতে পারে । তবে অন্ডকোষ ও পায়খানার রাস্তার মাঝামাঝি প্রস্রাবের নালীতে হালকা চাপ দিলে প্রস্রাব পরিষ্কার হয়ে বের হয় । এ জন্য কাশির প্রয়োজন হয় না । এবং ডাক্তারী মতেও কোন সমস্যা হয় না ।


ولو نزل البول الى قصبة الذكر لم ينقض الوضوؤ ولو خرج الى القلفة نقض الوضوءـ كذا في الذخيرة. (الفتاوى الهندية:1/9)