elektronik sigara

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ঈসায়ী।

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেরিয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

কুরবানীর গোস্ত জমা করে রাখা

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

আমরা সারা জীবন জেনে আসছি যে, কুরবানীর গোশত সাধারণতঃ তিন ভাগ করা হয়। তার মধ্যে এক ভাগ নিজেদের। এক ভাগ আত্মীয়-স্বজনের, এক ভাগ ফকীর মিসকীনদের দিতে হয়। কিন্তু গত ঈদে আমাদের মসজিদের শ্রদ্ধেয় ইমাম সাহেব ঈদের খুৎবায় বলেছেন যে, কুরবানীর সমস্ত গোশত নিজে খেতে পারবে। তিনি আরও বলেন-এই গোশত ৬ মাস রেখে খাওয়া যাবে। আমাদের প্রশ্ন হলো-পুরা গোশত খাওয়া জায়িয আছে কি-না? ৬ মাস রেখে গোশত খাওয়া যাবে কি-না?

 


জবাবঃ


কুরবানীর গোশত তিন ভাগে ভাগ করে এক ভাগ নিজে, এক ভাগ আত্মীয়-স্বজন ও একভাগ গরীবদের মধ্যে বিলিয়ে দেয়া ওয়াজিব নয়। বরং উত্তম বা মুস্তাহাব। সুতরাং কেউ যদি তিন ভাগ না করে নিজেরাই সব খেয়ে ফেলে, তাতেও কোন গুনাহ নেই।


গোশত কুরবানীর ৬ মাস কেন, তার চেয়ে বেশী সময় রেখে খাওয়া জায়িয আছে। সুতরাং সবটা খাওয়া জায়িয থাকলেও উত্তম নয়। [প্রমাণঃ হিদায়া ৪:৫০# ফাতাওয়ায়ে মাহমূদিয়া ১৪:৩৩৫# আদ্দুররুল মুখতার ৬:৩২৮]


ويأكل من لحم الاضحية ويطعم الغنياء والفقراء ويدخر.   (الهداية:4/450)


ولو حبس الكل لنفسه جاز.  (الدر المختار:6/328)