elektronik sigara

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২১শে জুমাদাল উলা, ১৪৪৪ হিজরী, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ ঈসা‘য়ী, শুক্রবার (সকাল ৭-৮টা থেকে শুরু হবে ইনশাআল্লাহ)

জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে প্রকাশিত একাডেমিক ক্যালেন্ডার পেতে ক্লিক করুন

হযরতওয়ালা দা.বা. কর্তৃক সংকলিত চিরস্থায়ী ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে চাইলে এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” এ ভিজিট করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

কিরা‘আতের কিছু অংশ ছেড়ে দিলে

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

কোন এক ইমাম সাহেব ফরজ নামাযে কিরা‘আত পড়ার সময় সূরা তাওবার ১০৭, ১০৮ ও ১০৯ আয়াত ঠিক পড়েছেন কিন্তু ১১০ আয়াতের {إِلَّا أَنْ تَقَطَّعَ قُلُوبُهُمْ}  শব্দটি ভুল ক্রমে ছুটে গিয়েছে। এমতাবস্থায় নামায শুদ্ধ হয়েছে কি ? নাকি নামায দুহরিয়ে পড়তে হবে।


জবাবঃ


সূরা তাওবার ১১০ আয়াতটি পূর্বের আয়াতের সাথে সম্পৃক্ত  {إِلَّا أَنْ تَقَطَّعَ قُلُوبُهُمْ}  বাদ পড়াতে নামায ফাসিদ হওয়ার মত কোন পরিবর্তন আসেনি। কেননা, ভুলের দরুন অর্থের মধ্যে যদি এমন পরিবর্তন না হয়, যা বিশ্বাস করা কুফরী, তাহলে নামায ফাসিদ হবে না।


সুতরাং, উল্লেখিত সুরতে উক্ত আয়াতের অংশ বাদ পড়াতে নামায ফাসিদ হয়নি। তাই নামায দোহরিয়ে পড়ার দরকার নেই। [প্রমাণ: ইমদাদুল মুফতীন ৩৫০]