elektronik sigara

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য ক্লিক করুন

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ ঈসায়ী।

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেরিয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

একই সঙ্গে একাধিক কবরে সওয়াল-জবাব হওয়া

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

হাদীস শরীফে আছে মুরদাকে কবরে রেখে ৪০ কদম চলে আসার পর দুই জন ফেরেশতা আসে সওয়াল জবাব করার জন্য। আমার প্রশ্ন হচ্ছে এই সময় যদি এক হাজার মুরদা দাফন করে তাহলে এক সাথে সবার সাওয়াল জবাব কিভাবে নিবেন। বিস্তারিত জানতে ইচ্ছুক।

 


জবাবঃ


একই সময়ে দুনিয়ার বিভিন্ন স্থানে কিংবা একই স্থানে অনেক মৃতকে দাফন করা হলে মুনকার-নকীর ফেরেশতাদ্বয় মৃতদেরকে কিভাবে প্রশ্ন করবেন? এ কৌতুহল নিরসনে একাধিক উক্তি পাওয়া যায়।


১। মুনকার-নকীর উভয় ফেরেশতার সাথে এ কাজে নিমিত্তে আরও অসংখ্য ফেরেশতা সহায়ক হিসেবে থাকেন। হযরত আযরাইল আ. যেমন তাঁর সহযোগী অন্যান্য ফেরেশতার দ্বারা জান কবযের কাজ নেন, তদ্রুপ মুনকার-নকীর ফেরেশতাদ্বয় নেতৃত্ব দিয়ে তাদের সহযোগী ফেরেশতা বাহিনী দ্বারা মৃতদের সাথে প্রশ্নোত্তর পর্ব সমাধা করেন।


২। অনেকে বলেন- সমগ্র দুনিয়া মুনকার-নকীরের নখদর্পনে উদ্ভসিত এবং দৃষ্টি ও ক্ষমতার আওতায়। যেমন- মালাকুল মউত হযরত আযরাঈল আ.-এর ক্ষেত্রে। সুতরাং তাদের জন্য একই সময়ে অনেক মৃতকে সওয়াল করা অসম্ভব বা কঠিন কিছু নয়।     [প্রমাণঃমিরকাত ১/২০০]


উল্লেখ্য, এ ধররেন প্রশ্ন যেহেতু ঈমান-আকীদার সাথে কোনই সম্পর্ক নাই এবং কবরে-হাশরে এ ব্যাপারে কোন প্রশ্নও করা হবে না বা এগুলো জানলে কোন সাওয়াব হবে না সুতরাং এ চেয়ে জরুরী যেসব বিষয় রয়েছে তা জানার জন্য এবং আমল করার জন্য সময় ব্যয় করা উচিৎ।