elektronik sigara

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২১শে জুমাদাল উলা, ১৪৪৪ হিজরী, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ ঈসা‘য়ী, শুক্রবার (সকাল ৭-৮টা থেকে শুরু হবে ইনশাআল্লাহ)

জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে প্রকাশিত একাডেমিক ক্যালেন্ডার পেতে ক্লিক করুন

হযরতওয়ালা দা.বা. কর্তৃক সংকলিত চিরস্থায়ী ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে চাইলে এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” এ ভিজিট করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

ঈদের নামাযে খুৎবার পর মুনাজাত

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

(১) ঈদের নামাযের খুৎবার পর সম্মিলিতভাবে মুনাজাত শরী‘আত সম্মত কি-না?

(২) কোন ইমাম সাহেব যদি ঈদের নামাযের পর মুনাজাত করেন এবং খুৎবার পর না করেন, এতে কিছু সাধারণ মুসল্লী আপত্তি করেন এই বলে যে, “এই নতুন নিয়মের স্থলে আমাদের পূর্বেই নিয়ম অর্থাৎ খুৎবার পর মুনাজাতই উত্তম”। অর্থাৎ তারা খুৎবার পর মুনাজাতকে জরুরী মনে করছেন। এ পরিস্থিতিতে খুৎবার পর মুনাজাত কি জায়িয?

(৩) কিছু লোক খুৎবার পূর্বে মুনাজাত এ কারণে পছন্দ করেন না যে, এতে ঈদের মাঠ ইত্যাদির জন্য টাকা তোলার অসুবিধা হয়। তাদের এ দাবী গ্রহণযোগ্য কি-না? যদি খুৎবার পূর্বে মুনাজাত করা হয় তবে টাকা তোলার শরয়ী পন্থা কি?

(৪) কোন ইমাম যদি একথা বলেন যে, আমার মুসল্লীগণ খুৎবার পর মুনাজাত জরুরী মনে করে না, তাই আমি মুনাজাত করি। তাহলে তার সত্যতা যাচাইয়ের উপায় কি?


জবাবঃ


(১-২) ঈদের নামাযের পর বা ঈদের খুৎবার পর দু‘আ করার কোন স্পষ্ট রেওয়ায়েত রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম, সাহাবায়ে কেরাম ও তাবেয়ীদের থেকে পাওয়া যায় না। তবে নামাযের পর দু’আ করার প্রতি হাদীসে উৎসাহিত করা হয়েছে। আর ঈদের নামাযও যেহেতু অন্যান্য নামাযের মত নামায; সুতরাং ঐ হাদীসের উপর ভিত্তি করে ঈদের নামাযের পরেও দু‘আ করা মুস্তাহাব। তবে দু‘আ করাকে জরুরী মনে করা ঠিক নয়।


আর খুৎবার পরও সুন্নাত বা মুস্তাহাব মনে না করে দু‘আ করা যেতে পারে।


(প্রমাণঃ মিশকাত শরীফ ১:৮৮# বুখারী শরীফ ১:১৩৬# দারুল উলূম ৫:২১৩# আহসানুল ফাতাওয়া ৪:১১৫# ফাতাওয়া মাহমূদিয়া ২:৩০৮ও৩১১)


(৩) নামায শুরু হওয়ার পর থেকে খুৎবা শেষ হওয়া পর্যন্ত এ সময়ের মধ্যে টাকা তোলা যাবে না। বরং যদি টাকা তুলতে হয় বয়ানের শেষে নামাযের পূর্বে অথবা খুৎবার শেষে তুলতে পারে।(প্রমাণঃ তহাবী শরীফ ১:২৫১)


(৪) ইমাম বা খতীব সাহেব যদি এসব মাসআলা বার বার বুঝিয়ে বলেন তাহলে মুসল্লীদের কি ঠেকা পড়েছে যে তারা একটা মুবাহ বা জায়িযকে জরুরী মনে করবে। যতস্থানে মুবাহকে জরুরী মনে করা হয়ে থাকে বুঝানোর অভাবে হয়ে থাকে।