elektronik sigara

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য ক্লিক করুন

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

ইনশাআল্লাহ জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসায় দাওয়াতুল হকের মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ ঈসায়ী।

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেরিয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

ইমামের জন্য নামাযী-বেনামাযী সকলের ঘরে খাওয়া ও বেতন নেয়া

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

মহল্লায় নামাযী, বে-নামাযী, সুদ খাওয়ায় অভ্যস্ত ও মদ খাওয়ায় অভ্যস্ত এমন বহু শ্রেণীর লোক বসবাস করে ‍থাকে। এখন কথা হল, এমন একটি মহল্লায় ইমাম সাহেব সকলের ঘরে খাওয়া-দাওয়া করতে পারবে কি-না। এমনিভাবে এদের থেকে উসূলকৃত টাকা দিয়ে ইমাম সাহেবের বেতন আদায় করা যাবে কি-না ?

 


জবাবঃ


বে-নামাযী এবং মদ পানে অভ্যস্ত ব্যক্তির অধিকাংশ মাল যদি হালাল উপায়ে উপার্জিত হয়, তাহলে তাদের বাড়ীতে খাওয়া-দাওয়া বা মসজিদ মাদ্রাসায় তাদের দান গ্রহণ করা যাবে। তবে এর থেকে দীনদার লোকদের পরহেয করা ভাল।


আর সুদখোর বা যে সমস্ত লোকদের অর্ধেক বা অধিকাংশ উপার্জন হারাম বলে প্রবল ধারণা হয় এবং হালাল মাল হতে খাওয়ানো বা দানের ব্যাপারে নিশ্চিত না হওয়া যায় তাহলে তাদের বাড়ীতে দাওয়াত খাওয়া বা তাদের দান গ্রহণ করা জায়িয নেই। [প্রমাণ: মাহমূদিয়া ৮ : ২৭২, # আলমগীরী ৫ : ৩৪২ ও ৩৪৩]