elektronik sigara

জামি‘আ রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে প্রকাশিত একাডেমিক ক্যালেন্ডার পেতে ক্লিক করুন

রজব মাস শুরু হলেই প্রিয় নবী এই দু‘আ খুব বেশী করে পড়তেন: اَللّهُمَّ بَارِكْ لَنَا  فِيْ  رَجَبَ  وَشَعْبَانَ  وَبَلِّغْنَا رَمَضَانَ

হযরতওয়ালা দা.বা. কর্তৃক সংকলিত চিরস্থায়ী ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করতে চাইলে এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” এ ভিজিট করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা এর লিখিত সকল কিতাব পাওয়ার জন্য এ্যাপের “সর্বশেষ সংবাদ” থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

প্রতিদিন আমল করার জন্য “দৈনন্দিন আমল ও দু‘আসমূহ” নামক একটি গুরত্বপূর্ণ কিতাব আপলোড করা হয়েছে।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক সাহেব দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

ইমামের উপস্থিতিতে অন্যের খুৎবা পড়া

তারিখ : ১৪ - ফেব্রুয়ারী - ২০১৮  

জিজ্ঞাসাঃ

কোন মসজিদের নির্দিষ্ট ইমাম যদি জুম‘আর দিন মুসল্লীদের অনুমতি ব্যতিরেকে নিজের কোন যোগ্য আত্মীয়কে খুৎবা পড়তে বলেন, তাহলে মুসল্লীরা এতে কোন আপত্তি জানাতে পারবে কি-না? এবং শরী‘আত মতে এরূপ করা জায়িয কি-না?


জবাবঃ


উত্তম হল- যিনি নামায পড়াবেন, তিনিই খুৎবা পড়াবেন। তবে ইমাম সাহেবের উপস্থিতিতে অন্য কেউ খুৎবাহ পাঠ করলে এবং ইমাম সাহেব নামায পড়ালে তাও জায়িয আছে। আর জায়িয কাজে আপত্তি না করাই কর্তব্য। কিন্তু ইমাম সাহেবের অনুপস্থিতিতে অন্য কাউকে দিয়ে খুৎবা পাঠ করানো ও ইমাম সাহেব পরে এসে নামায পড়ানো জায়িয নয়। (প্রমানঃ শামী ২:১৬২পৃ: # আহসানুল ফাতাওয়া ৪:১১১ # আযীযুল ফাতাওয়া ৩৯৯)


و لا ينبغي ان يصلي غير الخطيب................الخ- (رد المحتار 2/162)