elektronik sigara

সুখবর! সুখবর!! সুখবর!!! হযরতওয়ালা দা.বা. এর গুরত্বপূর্ণ ২ টি নতুন কিতাব বেড়িয়েছে। “নবীজীর (সা.) নামায” এবং “খ্রিষ্টধর্ম কিছু জিজ্ঞাসা ও পর্যালোচনা”।  আজই সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা দা.বা. এর কিতাব অনলাইনের মাধ্যমে কিনতে চাইলে ভিজিট করুনঃ www.maktabatunnoor.com

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক দা.বা. এর সমস্ত কিতাব, বয়ান, প্রবন্ধ, মালফুযাত পেতে   ইসলামী যিন্দেগী  App টি সংগ্রহ করুন।

হযরতওয়ালা মুফতী মনসূরুল হক দা.বা. এর নিজস্ব ওয়েব সাইট www.darsemansoor.com এ ভিজিট করুন।

(১) রোযা রেখে নিজেকে দেখা-শুনা করতে হবে, যাতে কোন প্রকার গুনাহ না হয়। গুনাহ ছাড়তে হবে।

(২) রমাযান মাস কুরআন শরীফ নাযিলের মাস, তাই প্রতি দিন কুরআন শরীফ তিলাওয়াতের জন্য সময় রাখতে হবে। এটা রমাযান মাসের হক।

(৩) কালিমায়ে তাইয়্যিবা বেশী করে পড়তে হবে।

(৪) রমাযান মাসে এই দু‘আ বেশি করে পড়তে হবে –    اَللّهُمَّ اِنَّا نَسْئَلُكَ الْجَنَّةَ وَنَعُوْذُبِكَ مِنَ النَّارَ

শবে ক্বদরের রাত্রিতে নিম্নের দু‘আ বেশি বেশি পড়তে থাকা –  اَلّلهُمَّ إِنَّكَ عَفُوٌّ تُحِبُّ الْعَفْوَ فَاعْفُ عَنِّىٍ

(আমালুল য়াউমি ওয়াললাইলাহ: হাদীস নং ৭৬৭ ইবনে মাজাহ, হাদীস নং ৩৮৫০)

ইফতারের সময় পড়বে –   يَا وَا سِعَ الْمَغْفِرَةِ اِغْفِرْلِىْ            (শু‘আবুল ঈমান- বাইহাকী, ৩:৪০৭)

তারপর ইফতার শুরু করার সময় পড়বে –   بِسْمِ اللهِ وَعَلى بَرَكَةِ اللهِ                 (মুসতাদরাকে হাকিম, ৫:১৪৬)

ইফতারের পর এ দু‘আ পড়বে –   اَللّهُمَّ لَكَ صُمْتُ وَعَلي رِزْقِكَ اَفْطَرْتُ          (আবূ দাউদ শরীফ, ১:৩২২)

অতঃপর নিম্নের দু‘আটিও পড়বে –  ذَهَبَ الظَّمَأُ وَابْـتَلَّتِ العُرُوْقُ وَثَبَتَ الاَ جْرُ اِنْ شَاءَ الله تَعَا لى   (আবূ দাউদ শরীফ, ১:৩২১)